1. feriwala.contact@gmail.com : shibchorprotidin :
মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০২:২৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ:
শিবচর উপজেলা আ.লীগ সাংগঠনিক ভাবে সবচেয়ে ঐক্যবদ্ধ: চীফ হুইপ ইলিশ শিকার বন্ধে জেলেদের কঠোর ভাবে সর্তক করলেন প্রশাসন ইলিশ সংরক্ষণ অভিযানে জেলেদের হামলায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সহ আহত ৪ শিবচরে পদ্মার পাড়ে রাতের আধাঁরে অবাধে বিক্রি হচ্ছে ইলিশ শিবচর উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী বিজয়ী শিবচর উপজেলা পরিষদের উপনির্বাচনে ভোট গ্রহন শুরু শিবচরে ইলিশ ধরার অপরাধে ১১ জেলেকে জরিমাণা ইলিশ ধরার অপরাধে শিবচরে ১৮ জেলেকে ১ বছর করে কারাদণ্ড মা ইলিশ ধরার অপরাধে শিবচরে ২১ জেলেকে প্রত্যেকে ১বছর করে কারাদণ্ড শিবচরে ইউপি চেয়ারম্যানের মৃত্যুতে চীফ হুইপের শোক প্রকাশ

মাদারীপুরে হাসপাতালের দারোয়ানের কারণে নবজাতকের মৃত্যু

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৮ নভেম্বর, ২০১৯
  • ১৭৮ বার পঠিত
মাদারীপুরে হাসপাতালের দারোয়ানের কারণে নবজাতকের মৃত্যু

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের দারোয়ানদের গাফিলতির কারণে এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে নবজাতকের বাবা, দাদা ও ফুপিকে মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। নবজাতক মাদারীপুর শহরের পানিছত্র এলাকার মারুফ শেখের সন্তান।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার দুপুরে মাদারীপুরের চৌধুরী ক্লিনিক নামে একটি প্রাইভেট হাসপাতালে মারুফ শেখের স্ত্রীর গর্ভ থেকে সিজারে বাচ্চাটি ভূমিষ্ট হয়। পরে বাচ্চাটির অবস্থার অবনতি হওয়ায় ডা. মো. ফিরোজ খান সদর হাসপাতালে স্থানান্তরের জন্য বলেন।

পরে বাচ্চাটিকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার আরও অবনতি হলে পরে একই ডাক্তার বৃহস্পতিবার সকালে ফরিদপুরে নিয়ে যেতে বলেন। শিশুটিকে ফরিদপুর নিয়ে যাওয়ার জন্য অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করা হয়।

এ সময় দারোয়ানরা ওয়ার্ডের দরজা বন্ধ করে রাখে। দরজা খুলতে দেরি হওয়ায় শিশুটির পরিবারের সদস্যরা বাহির থেকে ধাক্কাধাক্কি করে দরজা খোলার জন্য। এ সময় দারোয়ানদের আঘাতে শিশুটির বাবা মারুফ শেখ (৩০)-এর মাথা ফেটে যায়। শিশুটির দাদি রাহেলা বেগম (৫০) ও ফুপু মুক্তা (২২) দারোয়ানদের আঘাতে আহত হয়।

শিশুটির বাবা মারুফ শেখ জানান, ফরিদপুর রেফারের কথা শুনে আমি ডাক্তারের সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে ভেতরে প্রবেশ করতে চাইলে দরজার সামনে থাকা দারোয়ান আমাকে বাধা দেয়। একপর্যায়ে আমার মাথা ফাটিয়ে দেয়। এ সময় আমার মা ও বোনকে আঘাত করে। দারোয়ানের গাফিলতির কারণে আমার বাচ্চার মৃত্যু হয়েছে। আমি এর বিচার চাই।

মাদারীপুর সদর হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. মো. ফিরোজ খান বলেন, বাচ্চাটির ওজনের ঘাটতি ছিল। অবস্থার অবনতির কারণে আমি তাকে ফরিদপুর রেফার করি। বাইরে বাচ্চার বাবার সঙ্গে হাতাহাতির ব্যাপারে আমি সঠিকভাবে অবগত নই।

ছড়িয়ে দিন সবার মাঝে

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© 2019 Shibcharpratidin
Theme Customized By BreakingNews